হে আমার মুসলিম ভাই

0/5 No votes

Report this app

Description

যে জীবনব্যবস্থাকে আল্লাহ তাআলা প্রণয়ন করেছেন বিশ্ববাসীর সুখ, শান্তি ও কল্যাণের জন্য। যার মাধ্যমে তিনি মানুষকে দেখিয়েছেন সরল ও সুন্দর পথ। আল্লাহ তাআলা নবী সা.-এর কাছে পাঠিয়েছেন মহাগ্রন্থে আল-কুরআন। যার সবকিছু অতীব গুরুত্বপূর্ণ ও বাঞ্চিত। প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোনো কিছুই স্থান পায়নি সেখানে। আল-কুরআন হলো কালামুল্লাহিল কাদিম (আল্লাহর অবিনশ্বর গ্রন্থ।

নবী মুহাম্মাদ সা.-এর আগমের মাধ্যমে শেষ হয় নবুয়ত ও রিসালাতের ধারাবাহিকতা। তাই মুহাম্মাদ সা.-এর পরে আর কোনো নবী আসবেন না। সে আরও জানবে ও বিশ্বাস করবে কিতাবুল্লাহ ও সুন্নাতননবী হলো ইসলামের মূল স্তম্ভ ও হেদায়েতের বাতিঘর।

সুতরাং কুরআনে যা-কিছু বিবৃত হয়েছে সহীহ হাদীসে যা বর্ণিত হয়েছে সেসব কিছুই ইসলামের মূল উৎস। এর বাইরে যা-কিছু আছে, যেমন বেদআতড়ায়াকে একদল লোক দ্বীনের অংশ বানিয়ে নিয়েছে কিংবা দ্বীনের মধ্যে এমন কোনো বিষয়ের সংযোজন করছে, যা কুরআনে নেই, হাদীসেও বর্ণিত হয়নি এবং যার উপর উলামায়ে উম্মতের ইজমা প্রতিষ্ঠিত হয়নি ।

এবং কুরআন ও হাদীসের উপর ভিত্তি করেও তা বলা হয়নি। সেগুলো আদৌ দ্বীনের অংশ নয়। প্রকৃত মুসলিম আরও জানবে এবং বিশ্বাস করবে, ইসলামের সাথে দুনিয়ার অন্যকোনো ধর্মের মুশাবাহাত বা সাদৃশ্য-সামঞ্জস্য নেই। অন্যসব ধর্মকে ইসলামের সাথে তুলনা করবে না। কেননা, ইসলাম হলো একধারে ধর্ম, জীবনব্যবস্থা, রাষ্ট্রব্যবস্থ ও উত্তম চরিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook comments